আলীকদম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল বিশ্লেষণ


Momtaj Uddin Ahamad প্রকাশের সময় : মে ১০, ২০২৪, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন /
আলীকদম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল বিশ্লেষণ
চেয়ারম্যান জামাল, ভাইস চেয়ারম্যান রিটন ও শিরিনা

।। মমতাজ উদ্দিন আহমদ।।

পার্বত্য জেলা বান্দরবানের আলীকদমে অনুষ্ঠেয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের হার ৫৩ দশমিক ১৫ শতাংশ। এ পদে কাস্টিং ভোটের সংখ্যা ১৭ হাজার ৪৩৫ হলেও বৈধ ভোট হয় ১৭ হাজার ২১৬ টি। এরমধ্যে ২১৯টি ভোট বাতিল হয়।

স্মরণকালের সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ এ নির্বাচনে ‘দোয়াত কলম’ প্রতীক নিয়ে ‘চেয়ারম্যান’ পদে জামাল উদ্দিন ৯ হাজার ৭০০ ভোট পেয়ে ‘চেয়ারম্যান’ নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর প্রতিদ্বন্ধী মো. আবুল কালাম পেয়েছেন ৭ হাজার ৫১৬।

গত বুধবার (৮ মে) রাতে আলীকদম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারি রিটার্নিং অফিসার মো. আহাসান উদ্দীন এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, চারটি ইউনিয়নের মধ্যে ইউনিয়নভিত্তিক হিসেবে জামাল উদ্দিন (দোয়াত-কলম) আলীকদম সদরে ৩ হাজার ১৯৯টি, চৈক্ষ্যংয়ে ২ হাজার ৫৭৩টি, নয়াপাড়ায় ২ হাজার ২২১টি এবং কুরুকপাতা ১ হাজার ৭০৭টি ভোট পেয়েছেন।

অপরদিকে, আবুল কালাম (আনারস) আলীকদম সদরে ২ হাজার ৭৯৩টি, চৈক্ষ্যংয়ে ২ হাজার ৫৪৮টি, নয়াপাড়া ১ হাজার ৪৯৮টি এবং কুরুকপাতা ৬৭৭টি ভোট পেয়েছেন।

ভাইস চেয়রম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের হার ৫২ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এ পদে ১৭ হাজার ৩১৩ ভোট কাস্টিং হলেও বৈধ ভোট হয় ১৬ হাজার ৬৯৩ টি। এরমধ্যে ৬২০ টি ভোট বাতিল ঘোষণা করা হয়।

এ পদে ‘তালা-চাবি’ প্রতীক নিয়ে ৯ হাজার ১৪৬ ভোট পেয়ে ‘ভাইস চেয়ারম্যান’ নির্বাচিত হন মো. রিটন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ‘টিউবওয়েল’ প্রতীক নিয়ে কফিল উদ্দিন পান ৭ হাজার ৫৪৭ ভোট।

‘মহিলা ভাইস চেয়রম্যান’ পদে প্রদত্ত ভোটের হার ৫২ দশমিক ৭২ শতাংশ। এ পদে ১৭ হাজার ২৯৪ ভোট কাস্টিং হলেও বৈধ ভোট হয় ১৬ হাজার ৬৯৩ টি। এরমধ্যে ৬০১ টি ভোট বাতিল হয়।

এ পদে ‘প্রজাপতি’ প্রতীক নিয়ে ৮ হাজার ৮৬৮ ভোট পেয়ে ‘মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান’ নির্বাচিত হন শিরিনা আক্তার। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ‘পদ্মফুল’ নিয়ে ইয়াসমিন আক্তার পান ৭ হাজার ৮২৫ ভোট।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, আলীকদমে ৩২ হাজার ৮০৫ জন ভোটারের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৬ হাজার ৫২১ জন এবং নারী ভোটার ১৬ হাজার ২৮৪ জন রয়েছেন। ২১টি ভোট কেন্দ্রে ৯৪টি বুথ ছিল।

ইউনিয়নভিত্তিক ভোটার রয়েছে আলীকদম সদরে ১১ হাজার ৫৬৩টি, চৈক্ষ্যংয়ে ৯ হাজর ২৯৬টি, নয়াপাড়ায় ৫ হাজার ৮৩৩টি এবং কুরুকপাতা ৬ হাজার ১১৩টি।

২০১৯ এর নির্বাচনের চেয়ে এ উপজেলায় ভোটার বেড়েছে ৩ হাজার ৭২১ জন।