আলীকদম উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ১২ এপ্রিল


Momtaj Uddin Ahamad প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৯, ২০২৩, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন /
আলীকদম উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ১২ এপ্রিল

আগামী ১২ এপ্রিল আলীকদম উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নেতাকর্মীদের মাঝে জল্পনা-কল্পনা চলছে। সম্মেলনকে ঘিরে বিশাল সামিয়ানা ও তোরণ নির্মাণের হিড়িক পড়েছে। উপজেলা সদর ক্রমশঃ ব্যানার, ফেস্টুন, পোস্টারে সাজানো হচ্ছে।

অনুষ্ঠিতব্য এই সম্মেলনে সভাপতি পদে ৪ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৫ জন প্রার্থী রয়েছেন।

সম্মেলনে সভাপতি পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জামাল উদ্দিন, বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দুংড়িমং মারমা, সদর ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ফরিদ আহমদ প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন।

সভাপতি পদের প্রার্থীরা

সাধারণ সম্পাদক পদে বান্দরবাান জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অংশোথোয়াই মার্মা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কফিল উদ্দিন, নয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কফিল উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যুদ্ধমনি তঞ্চঙ্গ্যা ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোস্তফা জামান রাশেদ প্রার্থীতা করছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থীরা

জানা গেছে, দীর্ঘ ৫ বছর পর ১২ এপ্রিল আলীকদম উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হচ্ছে। সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষশক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

উদ্বোধক থাকবেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ক্যশৈহ্লা।

এছাড়াও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেবী ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক লক্ষ্মীপদ দাশ ও সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী প্রকাশ বড়ুয়া বিশেষ অতিথি থাকবেন।

জানা গেছে, বিগত ২০১৮ খ্রিস্টাব্দের ২৮ শে ফেব্রুয়ারি উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এতে কাউন্সিলরদের ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হন মংব্রাচিং মার্মা ও সাধারণ সম্পাদক হন দুংড়িমং মার্মা।

২০২১ খ্রিস্টাব্দে অনুষ্ঠেয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিরূপ মন্তব্যের জেরে সভাপতি থেকে মংব্রাচিং মার্মা বহিস্কারপ্রাপ্ত হলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হন জামাল উদ্দিন।

দলীয় একটি সূত্র জানায়, কাউন্সিলদের ভোটে নয়, জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পছন্দসই নেতাদেরকেই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনীত করা হতে পারে। সে ক্ষেত্রে নতুন পুরাতন কিংবা বর্তমান নেতৃত্ব থেকেই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হতে পারে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জামাল উদ্দিন বলেন, সম্মেলনের প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। নতুন কমিটি কি প্রক্রিয়ায় হবে তা নির্ধারণ করবে জেলা আওয়ামী লীগের অভিভাবক পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আওয়ামী লীগ নেতা কামরুল হাসান টিপুর কাছে জানতে চাইলে বলেন, ইতোমধ্যে সম্মেলনকে ঘিরে সব ধরণের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। প্রস্তুতিপর্ব শেষ পর্যায়ে রয়েছে।